স্প্যানিশ লিগের পয়েন্ট টেবিল কী দাঁড়াল

খেলা

মৌসুমের শুরুতে এমন কিছু কেউ ভাবতে পেরেছিল? স্প্যানিশ সুপার কাপে নিজেদের মাঠে ৩-১ গোলে হার। পরের লেগে রোনালদোবিহীন রিয়াল মাদ্রিদের কাছে আরও অসহায় প্রদর্শনী বার্সেলোনার। ২-০ গোলের হারও বোঝাতে পারছিল না সেদিনকার ম্যাচের অবস্থা। মাত্র চার মাস পরেই আরেকটি এল ক্লাসিকো হলো আজ। আর পাশার দান উল্টো গেল এরই মাঝে। রিয়ালকে বার্নাব্যুতেই ৩-০ ব্যবধানে হারিয়েছে বার্সেলোনা।

লিগে রিয়ালের চেয়ে ১৪ পয়েন্ট এগিয়ে গেছে বার্সেলোনা। হাতে এক ম্যাচ আছে রিয়ালের। তাতেও ব্যবধান ১১ এর কম হচ্ছে না। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদও বার্সেলোনার পিছিয়ে আছে ৯ পয়েন্টে। এতটা এগিয়ে গিয়েও বার্সেলোনা কোচ সন্তুষ্ট নন। আরনেস্তো ভালভার্দে যেন শিরোপা হাতে না পাওয়ার আগ পর্যন্ত নিশ্চিত হতে পারছেন না লিগ নিয়ে, ‘এখনো লিগ শেষ হয়নি। আমরা তো মৌসুমের এখনো অর্ধেকও শেষ করিনি।’
ভালভার্দে স্বীকার করুন আর নাই করুন। বার্সেলোনা এখন উড়ছে। সব প্রতিযোগিতা মিলে টানা ২৫ ম্যাচ অপরাজিত বার্সেলোনা। আগস্টের সুপার কাপের পর বার্সার এমন পারফরম্যান্সের কথা কেউ কল্পনাও করতে পারেনি। প্রায় ছয় দশক পর ডাবল জেতা রিয়ালেরও এমন অবস্থা যেমন ভাবতে পারেনি কেউ। লিগ জয়ের আশা কার্যত শেষ হয়ে গেলেও জিনেদিন জিদান এখনো আশা ছাড়ছেন না, ‘আমাদের মন খারাপ কারণ এ ম্যাচে হারটা দুঃখ দেয়। তবে যাই হোক না কেন, মাদ্রিদ কখনো হাল ছাড়ে না। এখন সময়টা কঠিন, যেহেতু তিন গোলে হেরেছি। আমি বলতেই পারি, এটা আমাদের প্রাপ্য ছিল না। কিন্তু এটাই ফুটবল।’
পুরো মৌসুমেই বার্সেলোনা দ্বিতীয়ার্ধে দুর্দান্ত খেলে ম্যাচ বের করে নিয়েছে। ৭০ ভাগ গোলই দ্বিতীয়ার্ধে করছে কাতালান দলটি। আজও প্রথমার্ধে একটু হলেও এগিয়ে থাকা রিয়াল হেরেছে দ্বিতীয়ার্ধের খেলায়। ভালভার্দেও জানিয়েছেন তাঁদের এ পরিকল্পনার কথা, ‘দ্বিতীয়ার্ধে আমরা খেলার নিয়ন্ত্রণ নিতে পেরেছি।’

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।