মেয়েদের শিরোপা স্বপ্নে আপনি থাকছেন তো?

খেলা

‘চ্যাম্পিয়ন, চ্যাম্পিয়ন’ গানটি বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটার ডোয়াইন ব্রাভোর কল্যাণে। গানটি ছাড়া উপমহাদেশে এখন আর যেন কোনো শিরোপা জয়ের উদ্‌যাপনই পূর্ণতা পায় না। তা সে যে খেলায়ই হোক না কেন। গানটিকে মনের মধ্যে ‘রিংটোন‘ হিসেবে সেট করে নিয়েছে বাংলাদেশের কিশোরীরা। শয়নে-স্বপনে একটাই ভাবনা, ভারতকে হারিয়ে হতে হবে দক্ষিণ এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন।

বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহি মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে রোববার বেলা দুইটায় মুখোমুখি হবে দুই প্রতিবেশী দেশ। খেলাটি মাঠ থেকে সরাসরি সম্প্রচার করবে প্রথম আলো ইউটিউব চ্যানেল ও প্রথম আলো ফেসবুক পেজ।

এর আগে গ্রুপ পর্বের ম্যাচে ভারতকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা। ফাইনালের আত্মবিশ্বাস অর্জনের পথে যা বেশ বড় একটা ধাপ। তবে পেছনের ম্যাচ নিয়ে আর পড়ে থাকতে চান না, বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী দলের কোচ গোলাম রব্বানি ছোটন,‌ ‘আগের ম্যাচে ভারতকে হারিয়েছি, যা আমাদের জন্য বাড়তি আত্মবিশ্বাস। তবে আগের ম্যাচ নিয়ে পড়ে থাকতে চাই না। প্রতিটা ম্যাচই নতুন। আগামীকাল ভারতকে হারানোর জন্য নতুনভাবে তৈরি হয়েছি আমরা। আত্মবিশ্বাস আছে চ্যাম্পিয়ন হতে পারব।’

টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ দল আছে দুর্দান্ত ছন্দে। গ্রুপ পর্বের তিন ম্যাচে প্রতিপক্ষের জালে ১২ গোল করার বিপরীতে তারা একটি গোলও হজম করেনি। ফাইনালেও গোলপোস্টটা যে অক্ষত থাকবে, সে আশা তো করাই যায়।

তবে গ্রুপ ম্যাচে তিন গোল হজম করলেও দমে যাচ্ছেন না ভারতীয় দলের কোচ মায়মল রকি। তাঁর আশা, শিষ্যরা নতুনভাবে ফিরে আসবে,‌ ‌‘ফাইনালের জন্য মুখিয়ে আছি এবং আমরা ভালো একটা ম্যাচ খেলতে চাই। আশা করি, দর্শক, গণমাধ্যম সবাই ম্যাচটা উপভোগ করবে। আগের ম্যাচের ফল আমাদের নিরুৎসাহিত করছে না বরং এটা আমাদের ফাইনালে আরও ভালো খেলার জন্য অনুপ্রাণিত করবে।’

ফাইনাল নিয়ে দুই দিন ধরে বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং চলছে। বলা হচ্ছে, ‘ফুটবল, ফুটবল…খেলা দেখতে আসুন। মেয়েদের উৎসাহিত করুন।’ মেয়েরা ভালো খেলছে। দেশের ফুটবলের বাস্তবতা বিচারে কোনো অলীক স্বপ্ন নয় বরং তার বিপরীতে দাঁড়িয়ে পারফরম্যান্স দিয়েই মেয়েরা চ্যাম্পিয়ন হতে চায়। আপনি আসছেন তো তাদের আশার পালে আশা জোগাতে?’

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।