বাগেরহাটে হাতের আংগুল কেটে জখম ও মারামারিতে আহত ১

অপরাধ

রণিকা বসু(মাধুরী)
বাগেরহাট থেকে :

এ যেন মরার উপরে খারার ঘা৷এমনিতে দেশর অবস্থা ভয়াবহ৷তার মধ্যে মানুষের মাঝে হিংস্রতা যেন বেড়েই চলছে৷মানুষ মানুষের যেন শত্রু৷নেই কোন একতা,এতটুকূ মনে নেই ভালোবাসা৷
এমন একটা ঘটনা ঘটেছে,

বাগেরহাটের চিতলমারীতে পুর্বশত্রুতার জেরধরে ও জমির সীমানা দখলকে কেন্দ্রকরে প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের কোপে তপন কুমার মন্ডল(৫৫) নামের এক ব্যাক্তির ডান হাতের তিনটি আঙ্গুল কেটে রক্তাক্ত জখম সহ মারপিট করে গুরুতর আহত করেছে প্রতিপক্ষরা। আহতকে স্থানীয় লোকজন চিতলমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে চিকিৎসা করিয়েছেন।সোমবার (১জুুন বেলা ১২টায়) এঘটনা ঘটেছে উপজেলার খলিশাখালী গ্রামে।

ভিকটিম তপন কুমার জানান বেলা ১২টার সময় তার পাশের মৎস্য ঘের মালিকও একই গ্রামের রাম সুন্দর হীরার ছেলে নিত্য রঞ্জন হীরা (৬০), দিবো দাস বৈদ্যের ছেলে দীপ বৈদ্য (৩২), জোর করে তার মৎস্যঘেরের সীমানা যেতে গড়া-বেড়া দিতে গেলে তাদেরকে তিনি বাঁধা প্রদান করেন।

এসময় নিত্য রঞ্জন হীরার হাতে থাকা ধারালো লোহার দা’দিয়ে তার গলা জড়িয়ে কোপ ছাড়ে ওই দায়ের কোপ হাত দিয়ে ঠেকাতে গেলে তার ডান হাতের তিনটি আঙ্গুল কেটে গুরুতর জখম হয়। এসময় তাদের লাঠিসোটার আঘাতে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ফুলা জখম করে।পরে লোকজন এসে তাকে চিতলমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে চিকিৎসা করায়।

সরেজমিনে এলাকাবাসি জানিয়েছেন জমিজমা সংক্রান্ত মামলা মোকদ্দায় পুর্ব শত্রæতার জেরধরে পরিকল্পিত এ হামলার ঘটনা।

থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর শরিফুল হক জানান অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত পুর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এরিপোর্ট লেখা কালিন নিত্য রঞ্জন হীরা গংদের সাথে যোগাযোগের চেস্টা করেও কথা বলা যায় নি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।