প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার উপহারের স্বপ্নের নীড়ে উঠবেন ১০০ গৃহহীন পরিবার

অন্যান্য

মুক্তারুজ্জামান আদমদীঘি (বগুড়া) :
‘আশ্রয়নের অধিকার, শেখ হাসিনার উপহার’, মুজিব বর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে মাথা গোঁজার ঠাঁই পাচ্ছে বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার ১০০টি অসহায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তৈরি হচ্ছে এসব গৃহহীনদের স্বপ্নের নীড়। চারদিকে ইটের দেওয়াল এবং মাথার উপরে দেওয়া হচ্ছে সবুজ টিনের ছাউনি। উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে দীর্ঘদিন থেকে স্থানীয়দের দখলে থাকা সরকারি খাস জমি উদ্ধার করে সেখানে ১০০টি পরিবারের জন্য ঘর নির্মাণের কাজ করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে ঘর নির্মাণ কাজ প্রায় শেষের পথে। দ্রুততার সাথে এখন করা হচ্ছে দরজা-জানালার কাজ।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, মুজিব বর্ষ উপলক্ষে উপজেলায় ১০০টি ঘর নির্মাণ করে গৃহহীনদের মধ্যে বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে। এর মধ্যে আদমদীঘি সদর ইউনিয়নে ৯টি, সান্তাহার ইউনিয়নে ১৪টি, চাঁপাপুর ইউনিয়নে ৬০টি, কুন্দগ্রাম ইউনিয়নে ৭টি ও ছাতিয়ানগ্রাম ইউনিয়নে ১০টি ঘর ভূমিহীন ও গৃহহীনের জন্য নির্মাণ করা হয়েছে। দুই কক্ষ বিশিষ্ট সেমি পাকা প্রতিটি ঘর নির্মাণে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে এক লাখ ৭১ হাজার টাকা। আর ১০০টি ঘর নির্মাণে ব্যয় করা হচ্ছে ১ কোটি ৭১ লাখ টাকা।

স্থানিয়দের অভিযোগ, উপজেলার সান্তাহার ও ছাতিয়ানগ্রাম ইউনিয়নে যেসব ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে সেগুলো নিচু জমিতে। এরমধ্যে সান্তাহার ইউনিয়নের তারাপুর এলাকায় ১৪টি নির্মাণাধীন ঘরগুলো ফসলী মাঠের জমিতে অপরিকল্পিতভাবে নির্মাণ করা হচ্ছে। ফলে ভূমি ও গৃহহীনদের জন্য করা বাড়িগুলো বর্ষা মৌসুমে দুর্যোগকবলিত হয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আমির হোসেন বলেন, এ প্রকল্পে মাটি কাটার বরাদ্দ নেই। তাছাড়া অল্প সময়ের মধ্যে গৃহহীনদের ঘর নির্মানের জন্য সেখানে কাজ করতে হয়েছে। এই মুহূর্তে মাটি কেটে উঁচু করে ঘর নির্মান করা সম্ভব নয়। গৃহহীনরা যেন দুর্যোগকবলিত হয়ে না পড়ে এজন্য বিকল্প চিন্তাও করা হচ্ছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সীমা শারমিন জানান, উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে হতদরিদ্র ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহবুবা হক নিষ্কন্ঠক খাস জমি নির্ধারন করেন। তিনি এবং পিআইও আমির হোসেন প্রকৃত হতদরিদ্র ভূমিহীন ও গৃহহীনদের খুঁজে এ প্রকল্পে তালিকাভুক্ত করেন। ইতিমধ্যে সেসব তালিকাভুক্তদের ঘরগুলোর নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। গত সপ্তাহে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য এসব নির্মাণাধীন ঘরের কাজ পরিদর্শন করেছেন বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মাসুম আলী বেগ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।