কট্টর হিন্দুবাদীর চরিত্রে নওয়াজ

বিনোদন

শিবসেনার প্রধান প্রয়াত বাল থাকরের চরিত্রে দেখা যাবে নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকিকে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মুম্বাইয়ের হোটেল গ্র্যান্ড হায়াতে মুক্তি পেয়েছে রাজনীতিবিদ বাল থাকরের আত্মজীবনীর ওপর নির্মিত ছবি ‘থাকরে’র টিজার। শিবসেনার মুখপাত্র দৈনিক পত্রিকা ‘সামনা’র সম্পাদক ও শিবসেনার সাংসদ এবং ছবির প্রযোজক সঞ্জয় রাওত আনুষ্ঠানিকভাবে ছবিটির টিজার প্রকাশ করেন। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অমিতাভ বচ্চন, উদ্ভব থাকরে ও তাঁর পরিবার।

সঞ্জয় রাওতের রাওটারস এন্টারটেইনমেন্ট থেকে আসছে বাল থাকরের জীবনের ওপর নির্মিতব্য ‘থাকরে’ ছবিটি। হিন্দি ও মারাঠি দুই ভাষায় ছবিটি মুক্তি পাবে। প্রথম শোনা গিয়েছিল বাল থাকরের মতো একজন প্রবাদপ্রতিম রাজনীতিবিদের চরিত্রে দেখা যাবে অক্ষয় কুমার কিংবা ইরফান খানকে। কিন্তু ছবির টিজার মুক্তির দিন সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটান সঞ্জয় রাওত। তিনি বলেন, ছবির পরিচালক অভিজিৎ পানসের গোড়া থেকেই মাথায় ছিল নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকির নাম। অক্ষয় বা ইরফানের নাম কখনোই ভাবা হয়নি। আর নওয়াজই পারেন এই চরিত্রকে যথাযথ সম্মান দিতে। ছবির অন্য চরিত্রগুলোর নির্বাচনের কাজ এখন চলছে।

বাল থাকরের মতো কট্টর হিন্দুপন্থী রাজনীতিবিদের চরিত্রে এক মুসলিম অভিনেতাকে নেওয়ার কারণে শিবসেনা কোনো বিরোধিতা করবে? সঞ্জয় রাওত বলেন, ‘শিবসেনা বিরোধিতা করার কোনো প্রশ্নই আসে না।’ শিবসেনার সাবেক প্রধান বাল থাকরের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বাল সাহেবের সঙ্গে আমি পুরো জীবন কাটিয়েছি। তাই তাঁকে খুব কাছ থেকে দেখার সৌভাগ্য হয়েছে। তিনি একমাত্র রাজনীতিবিদ, যিনি মানুষের চোখে চোখ রেখে কথা বলতে পারতেন।’

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ‘বাল সাহেব ড্রেসিং রুম নেতা ছিলেন না। তিনি ছিলেন ড্রয়িং রুম নেতা। মানুষের সামনে বসে কথা বলতে পছন্দ করতেন। কারও পেছনে কথা বলা বলতেন না।’

বলিউডের বরেণ্য অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন বলেন, ‘বাল সাহেব আমাকে তাঁর নিজের সন্তানের মতো ভালোবাসতেন, স্নেহ করতেন। বাল থাকরের মৃত্যুর আগে আমি তাঁর ঘরে গিয়ে দেখি আমার ছবি বিছানার পাশে রেখেছেন। আমার কঠিন সময় তিনি পাশে ছিলেন। আমার এবং আমার পরিবারের বিরুদ্ধে যখন কোনো অভিযোগ ওঠে, তখনো বাল সাহেব আমার পাশে ছিলেন। তিনি শুধু আমার কাছে জানতে চেয়েছেন, “যা শুনছি তা সত্যি না মিথ্যা।” আমি বলেছি, পুরোপুরি মিথ্যা। তখন বাল থাকরে আমাকে অভয় দিয়েছেন।’

অমিতাভ বচ্চন বলেন, ‘বাল সাহেবের সঙ্গে আমার ব্যক্তিগত ও পারিবারিক সম্পর্ক। তাঁর সঙ্গে প্রথম দেখা হওয়ার পর আমি তাঁর পরিবারের সদস্য হয়ে যাই। আমার বিয়ের পর তিনি জয়াকে বরণ করেন ঠিক নিজের বাড়ির বউয়ের মতো। এমন অনেক উদাহরণ আছে, যখন সত্যি তিনি পরিবারের মতো আমার পাশে দাঁড়িয়েছেন। ১৯৮২ সালে “কুলি” ছবির সময় আমি যখন আহত হই, বেঙ্গালুরুতে অচেতন ছিলাম, তখন ফ্লাইটে আমাকে মুম্বাই আনা হয়। ওই সময় ঘোর বর্ষা। মুষলধারে বৃষ্টি হচ্ছে। বিমানবন্দর থেকে ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য অ্যাম্বুলেন্স পাওয়া যায়নি। শেষে শিবসেনার অ্যাম্বুলেন্সে করে আমাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।’

প্রযোজক সঞ্জয় রাওতকে অনুরোধ করে অমিতাভ বচ্চন বলেন, ‘বাল সাহেবের মতো ব্যক্তিত্বকে তিন ঘণ্টার ছবিতে সীমাবদ্ধ করে রাখা যাবে না। তাঁর মতো মহান ব্যক্তিত্বকে তুলে ধরতে হলে চলচ্চিত্রের সিরিজ বানাতে হবে। তাই ওয়েব সিরিজের মাধ্যমে বাল সাহেবের জীবনী এবং তাঁর কর্মকাণ্ডকে তুলে ধরতে চেষ্টা করুন।’

অভিজিত পানসে পরিচালিত ছবিতে বাল থাকরের চরিত্রে অভিনয় করছেন নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকি। অনুষ্ঠানে তিনি ছিলেন না। মালয়েশিয়ায় ছবির শুটিংয়ে ব্যস্ত। তাই সেখান থেকে ভিডিও বার্তা পাঠান তিনি। নওয়াজ মারাঠি ভাষায় কথা বলেন। তবে অনুষ্ঠানে তাঁর স্ত্রী ও মেয়ে উপস্থিত ছিলেন। ‘থাকরে’ ছবিটি মুক্তি পাবে ২০১৯ সালের ২৩ জানুয়ারি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।