আশুলিয়া সাবেক যুবলীগ নেতা মোখলেছের বিরুদ্ধে বাসাবাড়িতে হামলা ও নারী-শ্লীলতা হানির অভিযোগ

অপরাধ

মনির হোসেন আশুলিয়া :
থানায় অভিযোগ করায় বাড়িতে হামলা চালিয়ে মারধর এবং বাদীর স্ত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছে সাবেক যুবলীগ নেতা মোখলেস মোল্লার বিরুদ্ধে। ৫ নভেম্বর বৃহস্পতিবার দুপুরে আশুলিয়ার উত্তর জামগড়া এলাকায় এঘটনা ঘটে।
সূত্রে জানায়, মোখলেস মোল্লা হঠাৎ করে রিপন নামের এক ব্যবসায়ীর কাছে ১১লাখ টাকা পাবে বলে দাবি করতে থাকে।টাকা না দিলে এলাকায় থাকতে দিবেনা বলে হুমকি ধামকিসহ দোকান থেকে রিপনকে কয়েকবার উঠিয়েও নিয়ে গেছে।
এমন অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগি। থানায় অভিযোগ করায় ইয়ারপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক এই নেতা রিপনের উপর অত্যাচারের মাত্রা বারিয়ে দেয় কয়েকগুন। অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে গত ৩ নভেম্বর ফের আশুলিয়া থানায় আরেকটি অভিযোগ দায়ের করেন।ফের থানায় অভিযোগ করায় মোখলেস মোল্লা তার লোকজন নিয়ে বৃহঃবার দুপুরে বাড়িতে ঢুকে রিপনসহ রিপনের স্ত্রী আসমা আক্তার কে মারধর করে।
এব্যাপারে ব্যবসায়ী রিপন বলেন,মোখলেস মোল্লা এলাকার প্রভাবশালী হওয়ায় তার বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে সাহস পায়না । সে সন্ত্রাস প্রকৃতিরলোক। তাকে টাকা দিতে না পারায় এবং থানায় তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করায় আমার ফার্ণিচারের দোকান বন্ধ করে দিয়েছে। দোকান বন্ধ করে দেয়ায় থানায় আরেকটি অভিযোগ করেছি এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আমার বাড়িতে এসে আমার স্ত্রীসহ আমাকে বেধরক মারধর করেছে । মোখলেস মোল্লা বলেন, তার বিরুদ্ধে মিথ্যা কথা বলা হচ্ছে। সে কারো বাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটায়নি।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন এলাবাসী বলেন,মোখলেস মোল্লা এলাকার প্রভাবশালী এবং ভয়ঙ্কর লোক । সে দিনকে রাত আর রাত কে দিন বলেল ওটাই ঠিক । তার বিরুদ্ধে আমরা কিছু বলেল এএলাকায় থাকতে পারবনা । পুলিশ তার পকেটে থাকে।
এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জসিম উদ্দিন বলেন, এমন একটি অভিযোগ পেয়েছি তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।